মেনু নির্বাচন করুন
            জেলার প্রায়  ৩১৩৪৯২টি কৃষক পরিবারের কৃষি বিষয়ক চাহিদা ও তার যোগান নিশ্চিতকল্পে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে যে সংস্থাটি নিরমত্মর কাজ করে যাচ্ছে, তা হচ্ছে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, ঝিনাইদহ । ৬টি উপজেলার কৃষি কার্যক্রমের তত্ত্বাবধানকারী, পরিকল্পনাকারী, মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠান কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের জেলা অফিসটি শহরের শেরে বাংলা সড়ক,কবরস্থান, হামদহ অবস্থিত। সংস্থা প্রধান হিসেবে রয়েছেন একজন উপ পরিচালক । একজন শস্য উৎপাদন বিশেষজ্ঞ এবং একজন উদ্ভিদ সংরক্ষণ বিশেষজ্ঞ রয়েছে । এর আওতায় ৬টি উপজেলায় ৬টি উপজেলা কৃষি অফিস ও ১৬১টি ব্লক রয়েছে। ব্লক পর্যায়ে নিয়োজিত উপ-সহকারী কৃষি অফিসার (এসএএও)গনের মাধ্যমে তৃণমূল পর্যায়ে কৃষি-সেবা নিশ্চিত করা হয়েছে।

সাধারণ তথ্য

সাংগঠনিক কাঠামো

কর্মকর্তাবৃন্দ

ছবিনামপদবিফোনমোবাইলইমেইল
কৃষিবিদ শাহ্ মোহা: আকরামুল হক উপ-পরিচালক০৪৫১৬২৩৭৬০১৭১৬৪৮৯৯১৯ddjhenidah@dae.gov.bd
নাজমুল আহসানজেলা প্রশিক্ষণ অফিসার০৪৫১৬২২৯১01715040041cg_bp22@yahoo.com
মোঃ ওয়াহিদুর রহমানঅতিরিক্ত উপ পরিচালক(পিপি)04516249801716-620199wahidur1743@gmail.com
মোঃ হানিফনার্সারী তত্ত্বাবধায়ক-০১৯২১-৯৪৯৭৯৫ddjhenidah@dae.gov.bd
মোঃ আব্দুল গনি খানউপ-সহকারী কৃষি অফিসার০১৭২১-১১৩৩৩৪ddjhenidah@dae.gov.bd
বিধান চন্দ্র বিশ্বাসউপ-সহকারী উদ্যান অফিসার০১৭১৫-৮৫০৬৪৭ddjhenidah@dae.gov.bd
অলোক কুমার বসুউপ-সহকারী উদ্যান অফিসারns.jhenaidah@gmail.com

কর্মচারীবৃন্দ

ছবিনামপদবি
মোঃ আলমগীর হোসেনপ্রধান সহকারী
নার্গিস বেগমঅফিস সহকারী তথা কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক
মোঃ আনোয়ার হোসোন খানওবিএম অপারেটর
হারাধন বিশ্বাসক্যাশিয়ার
মোঃ শহিদুল ইসলামমোকাদ্দম
মোঃ আনোয়ারুল ইসলামএম, এল, এস, এস
মোঃ আক্তারুজ্জামান খানগার্ড
মোহাম্মদ আলী ফার্মলেবার
মোঃ শরিফুল ইসলাম গার্ড
মোঃ হাসানুজ্জামান ফার্মলেবার
মোঃ আশরাফ আলীড্রাইভার
মোঃ আবু সহীদএম এল এস এস
মোঃ আসাদুল ইসলামঅফিস গার্ড
মোঃ আলীনুরফার্মলেবার

প্রকল্পসমূহ

 

 

 ১। ন্যাশনাল এগ্রিকালচারাল টেকনোলজি প্রজেক্ট ( এনএটিপি ) ।

 

২। মুজিবনগর সমন্বিত কৃষি উন্নয়ন প্রকল্প ।

 

৩। চাষী পর্যায়ে উন্নতমানের ধান, গম ও পাট বীজ উৎপাদন, সংরক্ষণ ও বিতরণ প্রকল্প ।

 

৪। চাষী পর্যায়ে উন্নতমানের ডাল, তৈল ও পেয়াজ বীজ উৎপাদন, সংরক্ষণ ও বিতরণ প্রকল্প ।

 

৫। সিরিয়াল সিষ্টেম ইনিসিয়েটিভ ফর সাউথ এশিয়া ( সিএসআইএস ) বাংলাদেশ প্রজেক্ট ।

 

৬। সমন্বিত বালাইদমন ব্যবস্থাপনা ( আইপিএম ) ।

 

৭। সমন্বিত ফসল ব্যবস্থাপনা ( আইসিএম ) ।

 

৮। দ্বিতীয় শস্য বহুমুখীকরণ প্রকল্প ।

 

৯। এআরএসপিডিএস প্রকল্প ।

 

১০। এসিআইএআর রইস পালস্ প্রজেক্ট ।

 

১১। ধান ফসলের ফলন পার্থক্য কমানো প্রকল্প । 

 

যোগাযোগ

               

  কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, শেরে বাংলা সড়ক, ঝিনাইদহ ।

টেলিফোন নং- ০৪৫১-৬২৩৭৬,ফ্যাক্স নং- ০৪৫১-৬৪০০৬,

ইমেইল ঠিকানা- ddjhenidah@dae.gov.bd

কী সেবা কীভাবে পাবেন

ক্রমিক

নং

সেবার নাম

দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা / কর্মচারী

সংক্ষিপ্ত সেবা প্রদান পদ্ধতি

সেবা প্রাপ্তির প্রয়োজনীয় সময় ও খরচ

সংশ্লিষ্ট আইন-কানুন

/ বিধি-বিধান/  নীতিমালা

নির্দিষ্ট সেবা পেতে ব্যর্থ  হলে পরবর্তী প্রতিকারকারী কর্মকর্তা

০১

বালাই নাশকের খুচরা ও পাইকারি বিক্রেতার লাইসেন্স প্রদান

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৩। উপ-সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা (SAPPO)

আবেদনকারীকে খুচরা লাইসেন্সের আবেদনপত্র দাখিল করতে হয়। পরিদর্শক  আবেদনকারীর বিষয়টি সরেজমিনে যাচাই করে ইউএও-এর নিকট প্রতিবেদন দাখিল করেন। সকল কাগজপত্রসহ আবেদন জেলায় প্রেরণ করা হয়। জেলাতে উপ-পরিচালকের  অনুমোদনের পর পিপিএস কর্তৃক লাইসেন্স প্রদান করে উপজেলা অফিসে প্রেরণ করা হয়। অত:পর উপজেলা অফিসে হতে আবেদনকারীকে লাইসেন্স সরবরাহ করা হয়ে থাকে।

১০—১৫ দিন;

১. বালাইনাশকের খুচরা বিক্রেতার নতুন লাইসেন্স এর ফি৩০০ টাকা ও নবায়ন ফি-২০০ টাকা,

২. বালাইনাশকের পাইকারি বিক্রেতার নতুন লাইসেন্স এর ফি ১০০০ টাকা ও নবায়ন ফি-৫০০ টাকা।

দি পেস্টিসাইড অর্ডিনেন্স, ১৯৭১, পেস্টিসাইড রুলস ১৯৮৫ এবং পেস্টিসাইড রুলস এমেন্ডমেন্ট ২০১০

উপ-পরিচালক

০২

প্রযুক্তি সহায়তা

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

নতুন প্রযুক্তির ক্ষেত্রে উপজেলা/ ইউনিয়ন কমিটিকে অবহিত করা হয় এবং কৃষকদের নিয়ে অবহিতকরণ সভার আয়োজন করা হয়। দলীয় ও ব্যক্তিগত যোগাযোগের মাধ্যমে কৃষি প্রযুক্তি ও তথ্য সকল ধরণের কৃষকের নিকট পৌঁছে দেয়। পরীক্ষিত প্রযুক্তির ক্ষেত্রে প্রদর্শনী প্লট ও প্রগতিশীল/ আগ্রহী চাষি নির্বাচন এবং বিষয় ভিত্তিক ও এলাকা উপযোগী প্রযুক্তি নির্বাচন করে প্রযুক্তি বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়। মাঠে প্রয়োগের উপযুক্ত প্রযুক্তি হস্তান্তরের (Technology Transfer) ক্ষেত্রে বিভিন্ন পর্যায়ে চাষিদের মাঠ প্রদর্শনী প্লট স্থাপন, পরিদর্শন/ পরামর্শ প্রদান, মনিটরিং, মাঠ দিবস উদযাপন ও র‌্যালির আয়োজন করা হয় এবং নমুনা শস্যকর্তন ও প্রতিবেদন তৈরি করা হয়। গুরুতর সমস্যা দেখা দিলে ফিডব্যাক সংগ্রহ করে বা কৃষকের মতামতের ভিত্তিতে ও প্রাপ্ত ফলাফলের ভিত্তিতে তা গবেষণা প্রতিষ্ঠানে এবং উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট প্রতিবেদন প্রেরণ করা হয়।

২৫-৩৩ দিন; ফ্রি

 

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

০৩

মান সম্মত বীজ উৎপাদনে সহায়তা

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

আগ্রহী ও প্রগতিশীল চাষি এবং জমি নির্বাচন করে প্রশিক্ষণ প্রদান হয় এবং গুরুত্বপূর্ণ শর্ত ও সাবধানতা বিষয়ে জানানো হয়। প্রদর্শনী প্লট স্থাপন, মাঠ পরিদর্শন, পরামর্শ প্রদান, মনিটরিং, উপযুক্ত সময়ে রোগিং বা বাছাই করে মাঠ দিবস ও র‌্যালির আয়োজন করা হয় এবং উৎপাদিত বীজ/শস্য সংগ্রহ, গ্রেডিং ও সঠিকভাবে সংরক্ষণের বিষয়ে প্রয়োজনীয সহায়তা প্রদান করা হয়। পার্শ্ববর্তী প্রগতিশীল ও সাধারণ চাষিকে মানসম্মত বীজ (Truthful level) উৎপাদনে ও ব্যবহারে উৎসাহিত করা ও পরামর্শ প্রদান করা হয়। অন্যান্য চাষিদের মাঝে বীজ বিক্রয়/ বিনিয়োগের ক্ষেত্রে সহায়তা প্রদান করা হয়।

মধ্যবর্তী সময়ে বীজের মান যাচাই এবং পরবর্তী বছরে বীজ বপনের আগে বীজ শোধন (Seed treatment) নিশ্চিত করাসহ পরবর্তী বছর বীজ উৎপাদনে প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিয়ে সহায়তা করা হয়।

1-6 মাস; ফ্রি

 

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

০৪

কৃষি ঋণ প্রাপ্তিতে সহায়তা প্রদান

১। সদর দপ্তরের উপ-পরিচালক (ফা: ইকো:)

২। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

৩। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৪। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৬। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

ঋণ বিষয়ক সুবিধাদি এবং প্রযোজ্য সুদের হার বিষয়ে কৃষকদের অবহিত করা  হয়।কৃষকদের সাথে সভা করে ঋণ গ্রহণে ইচ্ছুক উপযুক্ত/আগ্রহী চাষির সংখ্যা জানা হয়। সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান হতে কৃষি ঋণ গ্রহণে ইচ্ছুক উপযুক্ত চাষির তালিকা তৈরি করে ইউনিয়ন কমিটি কর্তৃক আগ্রহী ও প্রগতিশীল কৃষকের উপযুক্ততা যাচাই পূর্বক অগ্রাধিকার তালিকা তৈরি এবং সুপারিশসহ উপজেলা কমিটিতে প্রেরণ করা হয়। উপজেলা কমিটিতে অগ্রাধিকার তালিকা উপস্থাপন, অনুমোদন এবং ঋণ প্রাপ্তির সুপারিশসহ সংশ্লিষ্ট ব্যাংকে প্রেরণ করা হয়।সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান হতে কৃষি ঋণ প্রাপ্তিতে সহায়তা করা হয় এবং এর অনুকূলে ফসল উৎপাদন পরিকল্পনা প্রণয়নে সহায়তা প্রদান করা হয়।

বাংলাদেশ ব্যাংকে প্রধান প্রধান ফসলের উৎপাদন খরচ সরবরাহ করে ঋণ বিতরণের নীতিমালা প্রণয়নে সহায়তা প্রদান সংশ্লিষ্ট ব্যাংক কর্তৃক ঋণের টাকা কৃষকের ব্যাংক একাউন্টে স্থানান্তরের ক্ষেত্রে সহায়তা করা হয়।

৬-৭ দিন; ফ্রি

 

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

0৫

কৃষি তথ্য ও যোগাযোগ  প্রযুক্তি সহায়তা

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

বিভিন্ন পরামর্শ কেন্দ্র থেকে কৃষি বিষয়ক যে কোন তথ্য, পরামর্শ, প্রযুক্তি ইত্যাদি বিষয়ে কৃষিকর্মী, কৃষক এবং জনসাধারণকে সহায়তা প্রদান করা হয়। সেজন্য কৃষককে পরামর্শ কেন্দ্র, কৃষি অফিস, এআইসিসি, ইউআইসিসি ইত্যাদি কেন্দ্র থেকে এবং গণমাধ্যমের সহায়তা নেয়ার জন্য উৎসাহ দেয়া হয় এবং নিয়ম কানুন সম্পর্কে জানানো হয়। তাছাড়া অনুষ্ঠান প্রচারের সময়সূচি, ই-মেইল, ওয়েবসাইট ইত্যাদি বিষয়ক ঠিকানা সম্বলিত পোস্টার, ফেস্টুন বিতরণ করা হয়। কৃষি বিষয়ক যেকোন তথ্য ডিএই/এআইএস’এর ওয়েবসাইট থেকে নেয়া যেতে পারে। বিভিন্ন তথ্য ও প্রযুক্তি জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন এবং ব্লক পর্যায়ে প্রদর্শন, সংরক্ষণ ও বিতরণ করা হয়। বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া এবং অন্যান্য মাধ্যমে কৃষি তথ্য ও প্রযুক্তি কৃষিকর্মী, কৃষক ও সাধারণ জনগণের মধ্যে পৌঁছানো হয় ।

তাৎক্ষণিক/   ১-২ দিন; ফ্রি

 

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল ও কৃষি সম্প্রসারণ নীতিমালা অনুযায়ী

উপজেলা কৃষি অফিসার ও

উপ-পরিচালক

০৬

সমন্বিত সম্প্রসারণ সেবা প্রদান

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা,

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO

 

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর এবং বিভিন্ন সরকারি, বেসরকারি ও গবেষণা সংস্হার সাথে সমন্বয় সাধন করা হয়। সমন্বিত সম্প্রসারণ সেবা প্রদানের জন্য প্রথমে কৃষি বিভাগীয় কর্মকর্তা/কর্মচারীদের মাধ্যমে কৃষক নির্বাচন করা হয়। সমন্বিত সম্প্রসারণ সেবা প্রদানের জন্য প্রশিক্ষণ দেয়া হয় এবং প্রযোজ্য ক্ষেত্রে  প্রশিক্ষণ উপকরণ প্রদান করা হয়। নির্বাচিত কৃষকদের নিয়ে সমন্বিতভাবে সভা, কর্মশালা, সেমিনারের আয়োজন করা হয় এবং মাঠে প্রদর্শনী প্লট স্হাপন ও প্রদর্শনী উপকরণ বিতরণ করা হয়। তাছাড়া, মাঠ দিবস উদযাপন ও কৃষক র‌্যালীর আয়োজন করা হয়। সমন্বিত সম্প্রসারণ সেবা কার্যক্রম পরিদর্শন, তদারকি ও মনিটরিং করা হয়।

৫-১০ দিন; ফ্রি

 

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল ও কৃষি সম্প্রসারণ নীতিমালা অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

০৭

কৃষি পণ্য বিপণনে সহায়তা করা

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর এবং বিভিন্ন সরকারি, বেসরকারি ও গবেষণা সংস্হার সাথে সমন্বয়সাধন করে সভা অনুষ্ঠান করা হয়। কৃষকের উৎপাদিত পণ্যের বাজারজাত করণে প্রয়োজনীয় তথ্য সরবরাহও পরামর্শ প্রদান করা হয় । এনজিও এবং কৃষক দলের সদস্যদের নিয়ে Business Membership Organization (বিএমও), কৃষকদের নিয়ে সংগঠন তৈরি করা হয়।     ভাগ করা খুচরা/পাইকারি ক্রেতা নির্বাচন এবং বড় বাজারের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করা হয়। কৃষি পণ্য বিপণনের সুবিধার্থে বাজার তৈরি বা ছোট গোডাউন নির্মাণ করা হয়। কৃষকের উৎপাদিত দ্রব্যের নায্যমূল্যে বিক্রয়ের লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিয়ে সহায়তা করা হয়।

১-৬ মাস; ফ্রি

 

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল ও কৃষি সম্প্রসারণ নীতিমালা অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

০৮

কৃষি পণ্যের মূল্য সংযোজনে সহায়তা

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর এবং বিভিন্ন সরকারি, বেসরকারি সংস্হার ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের সাথে সমন্বয়সাধন করার জন্য সভা, সেমিনার করে     উৎসাহী ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান নিয়ে সংগঠন তৈরি করা হয়। কৃষকের উৎপাদিত পণ্যের মূল্য সংযোজনের সুবিধা পেতে প্রয়োজনীয় তথ্য উপাত্ত সরবরাহ করা হয়। তাছাড়া কৃষকের উৎপাদিত পণ্যের মূল্য সংযোজনে ও কারিগরি বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়ে থাকে। কৃষকদের উৎপাদিত কৃষি পণ্যের প্রক্রিয়াজাতকরণ, প্যাকেজিং ও নানাবিধ ব্যবহারমুখী পণ্যে রুপান্তরে কারিগরি সহায়তা প্রদানসহ প্রতিষ্ঠান বা ব্যাংক ঋণ প্রাপ্তি বা সঞ্চয় বৃদ্ধিতে সহযোগিতা প্রদান।

         কৃষকদের উৎপাদিত পণ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ যন্ত্র সংগ্রহে বা ক্রয়ে সহযোগিতা করা হয়।

১-১২ মাস; ফ্রি

 

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল ও কৃষি সম্প্রসারণ নীতিমালা অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

০৯

প্রশিক্ষণ প্রদান

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা,

২। অতি: কৃষি কর্মকর্তা,

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা,

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা,

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

৬। কৃষি অফিসের অন্যান্য কমর্চারী

 

উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা এবং অন্যান্য কর্মচারীদের মাধ্যমে         উপযুক্ত, প্রগতিশীল/ আগ্রহী চাষি নির্বাচন করা হয়। প্রশিক্ষণের জন্য বিষয়ভিত্তিক ও এলাকা উপযোগী প্রযুক্তি/ বিষয় নির্বাচন করা হয়। কৃষি বিষয়ক উন্নত প্রযুক্তি মডেল/ নমুনা/পদ্ধতি ইত্যাদি বিষয়ে কৃষকদেরকে হাতেকলমে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়ে থাকে।         মাঠে প্রয়োগের উপযুক্ত প্রযুক্তির ক্ষেত্রে হাতে কলমে প্রশিক্ষণের জন্য বিভিন্ন পর্যায়ে প্লট ও কৃষক নির্বাচনপূর্বক মাঠ পরিদর্শন/ পরামর্শ প্রদানসহ মনিটরিং করা হয় এবং  নমুনা শস্যকর্তন ও প্রতিবেদন তৈরি করা হয়ে থাকে। কৃষকের মতামতের ভিত্তিতে সমস্যা চিহ্নিতকরণ এবং গুরুতর সমস্যা দেখা দিলে তা গবেষণাগারে প্রেরণ এবং উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট  প্রতিবেদন প্রদানের মাধ্যমে অবহিত করা হয়।

 

১-১২ মাস; ফ্রি

 

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল ও কৃষি সম্প্রসারণ নীতিমালা অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

১০

কৃষি পুণর্বাসনে সহায়তা

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

ইউনিয়ন কমিটি কর্তৃক প্রগতিশীল কৃষকের উপযুক্ততা যাচাই পূর্বক নীতিমালা অনুযায়ী অগ্রাধিকার তালিকা তৈরি এবং সুপারিশসহ উপজেলা কমিটিতে প্রেরণ করা হয়। উপজেলা কমিটিতে অগ্রাধিকার তালিকা উপস্থাপন ও অনুমোদন করা হয়।ভর্তুকি প্রাপ্তির সুপারিশসহ তা সংশ্লিষ্ট ব্যাংকে/ কোম্পানী এজেন্ট/ ডিলারের নিকট প্রেরণ করা হয়ে থাকে। উপকরণ (বীজ/ সার/ ডিজেল ইত্যাদি) অনুমোদিত তালিকা অনুযায়ী নির্ধারিত তারিখে কৃষকদের মাঝে বিতরণ করা হয়। অর্থের ক্ষেত্রে ১০ টাকার বিনিময়ে ব্যাংক একাউন্ট খোলা বা একাউন্ট থাকলে অর্থ ব্যাংক একাউন্টে স্থানান্তর করা হয়ে থাকে। 

১-১২ মাস; ফ্রি

 

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল ও সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী নীতিমালা অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

১১

কৃষিতে ভর্তুকি ও উৎপাদনে সহায়তা প্রদান

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে উপকরণাদি কৃষকের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রাখার জন্য এবং উৎপাদন খরচ কমানোর জন্য বিভিন্ন সময় সরকারের দেয়া ভর্তুকি উপকরণাদি কৃষকদের মধ্যে বিতরণের লক্ষ্যে নিম্নবর্ণিত কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়:

- সরকারি আদেশ মোতাবেক জেলা কৃষি পুনর্বাসন বাস্তবায়ন কমিটি কর্তৃক উপজেলা ওয়ারী বিভাজন করা হয়।

- উপজেলা কমিটি কর্তৃক কার্যক্রম গ্রহণ ও ইউনিয়ন ওয়ারী বিভাজন করা হয়।

- খসড়া তালিকা তৈরি ও ইউনিয়ন পর্যায়ের সভায় অনুমোদন এবং উপজেলা কমিটিতে প্রেরণ করা হয়ে থাকে।

- প্রাপ্ত খসড়া তালিকা উপজেলা পর্যায়ে সভা ও উপজেলা কমিটি কর্তৃক অনুমোদন করা হয়।

- জেলা কমিটিতে অনুমোদন ও উপজেলা ওয়ারী বরাদ্দ দেয়া হয়।

- ইউনিয়ন ভিত্তিক চূড়ান্ত বরাদ্দ ও বিতরণের স্থান ও তারিখ নির্ধারণ করে থাকে। অত:পর কৃষককে অবহিতকরণ ও ব্যাংক হিসাবের মাধ্যমে টাকা প্রদান বা ডিলারের মাধ্যমে উপকরণ বিতরণ করা হয়।

১০-১৫ দিন; ফ্রি

 

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল ও সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী নীতিমালা অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

১২

১০ টাকার বিনিময়ে ব্যাংক হিসাব খুলতে সহায়তা

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা কর্তৃক কৃষকদের অগ্রাধিকার তালিকা তৈরি করে ইউনিয়ন কৃষি কমিটির সভায় অনুমোদন ও উপজেলা কমিটিতে প্রেরণ করা হয়। সেখান থেকে প্রাপ্ত তালিকা উপজেলা কৃষি কমিটির সভায় অনুমোদন করে ব্যাংকে প্রেরণ করা হয়ে থাকে। ব্যাংক কর্তৃক দাখিলকৃত ডকুমেন্ট  ভিত্তিতে এবং উপজেলা কমিটির অনুমোদনের প্রেক্ষিতে  হিসাব খোলা হয়। উক্ত হিসাব নম্বর হতে কৃষক আর্থিক লেনদেন করতে পারে।

৪-৫ দিন; ফ্রি

 

সরকারের নির্বাহী আদেশ অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

১৩

কৃষি উপকরণ সহায়তা

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

 

 

 

 

 

কৃষক কর্তৃক উপকরণের জন্য আবেদনের প্রেক্ষিতে চাহিদা নিরূপন করা হয়। নিরূপিত চাহিদা সম্পর্কে এসএএও কর্তৃক উপকরণের চাহিদা প্রস্ত্তত করা হয়। উপকরণের চাহিদা মাফিক তালিকা প্রস্ত্ততকরণ ও সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানে প্রেরণ করা হয়ে থাকে। সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান কর্তৃক চাহিদার যৌক্তিকতা বিশ্লেষণ ও উপকরণ সরবরাহের নিমিত্ত ডিও প্রেরণ করা হয়।         ডিও অনুযায়ী চাষিদের চূড়ান্ত তালিকা প্রণয়ন ও চাহিদাকৃত উপকরণ সরবরাহ করা হয়।

১৫-২০ দিন; ফ্রি

 

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল ও কৃষি সম্প্রসারণ নীতিমালা অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

১৪

সার ডিলার ও খুচরা সার বিক্রেতা নিয়োগ

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

ডিলার নিয়োগের লক্ষ্যে ডিলার শূন্য ইউনিয়নের বিপরীতে জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। নিয়োগের শর্তাবলি পূরণ পূর্বক নির্ধারিত সময়ের মধ্যে আবেদন করতে হয়। অত:পরউপজেলা সার ও বীজ মনিটরিং কমিটির মাধ্যমে যাচাই বাছাই করা হয়ে থাকে। সরেজমিনের তদন্ত ও পরিদর্শন প্রতিবেদনের প্রেক্ষিতে উপজেলা কমিটিতে পেশকরণ এবং উপজেলা সার ও বীজ মনিটরিং কমিটি কর্তৃক যাচাই বাছাই ও সুপারিশের ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। প্রস্তুতকৃত প্রাথমিক তালিকা জেলা সার ও বীজ মনিটরিং কমিটিতে প্রেরণ করা হয়।  জেলা কমিটিতে সিদ্ধান্ত গ্রহণের পর সুপারিশসহ বিসিআইসি ঢাকাতে প্রেরণ করা হয়।

প্রতিটি ইউনিয়ন হতে এক (০১) জন BCIC সারের ডিলার এবং প্রতি ওয়ার্ডে এক (০১) জন খুচরা সার বিক্রেতা নিয়োগের ব্যবস্থা করা হয়।

BCIC কর্তৃক চূড়ান্তভাবে সার ডিলার নিয়োগ প্রদান ও দুই লক্ষ টাকা জামানত জমা করার পর ডিলাদের সাথে চুক্তি সম্পাদিত হয়। BCIC উপজেলা এবং জেলা সার ও বীজ মনিটরিং কমিটিকে ডিলার নিয়োগ পত্রের অনুলিপি প্রেরণ করে থাকে।

খুচরা সার বিক্রেতা নিয়োগের পদ্ধতিঃ

প্রতি ওয়ার্ডে ০১ জন খুচরা সার বিক্রেতা হিসেবে নিয়োগ লাভের জন্য সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের বাসিন্দাগণ UAO বরাবর আবেদন করেন। আবেদন যাচাই বাছাই এর জন্য ইউনিয়ন কমিটিতে প্রেরণ এবং।

   -ইউনিয়ন কমিটি কর্তৃক যাচাই শেষে সুপারিশসহ উপজেলা কমিটিতে প্রেরণ করা হয়।     উপজেলা কমিটির সভায় চূড়ান্তভাবে খুচরা বিক্রেতা নির্বাচন করা হয়। পরবর্তীতে UAO কর্তৃক খুচরা সার বিক্রেতাদের আইডি কার্ড প্রদান করা হয়।

 

১৮-২০ দিন; পাইকারি সার ডিলার নিয়োগ-দুই লক্ষ টাকা জামানত, খুচরা সার বিক্রেতা নিয়োগ-ত্রিশ হাজার টাকা জামানত।

সার ব্যবস্থাপনা আইন-২০০৬ এবং সার ব্যবস্থাপনা বিধিমালা-২০০৭।

উপ-পরিচালক

১৫

সংগনিরোধ সেবা

১। উপ-পরিচালক (সংগনিরোধ)

২। সংগনিরোধ কীটতত্ত্ববিদ

৩। উপ-সহকারী সংগনিরোধ অফিসার

কোয়ারেনটাইন অ্যাক্ট-২০১১ প্রয়োগের মাধ্যমে সমুদ্র, স্থল ও বিমান বন্দরে বৈদেশিক রোগবালাই এর অনুপ্রবেশ ও বিস্তার প্রতিরোধের জন্য কোয়ারেনটাইন সেন্টার বা চেক পোস্ট স্থাপন করা হয়ে থাকে। রোগ বালাই সনাক্তকরণ করার পর মিনি ল্যাবরেটরিতে পরীক্ষা করা হয়। কোন নাগরিক উদ্ভিদ বা বীজের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য আনলে তার পরীক্ষা করে সে বিষয়ে সার্টিফিকেট প্রদান প্রদান করা হয়।

দেশের অভ্যন্তরে ও আঞ্চলিক পর্যায়ে মারাত্ত্বক বালাই এর অনুপ্রবেশ ও বিস্তার রোধে ল্যাবরেটরি পরীক্ষা/নিরীক্ষা করে  প্রত্যয়ন দেয়া হয়।

রপ্তানির ক্ষেত্রে উদ্ভিদ স্বাস্হ্য প্রত্যয়ন (Plant Health Certificate) প্রদান করা হয়। একই ভাবে উদ্ভিদ/উদ্ভিদ-জাতদ্রব্যের সংগনিরোধ সেবা প্রদান করা হয়ে থাকে।

IPPC (International Plant Protection Convention) এর সহিতযোগাযোগ রেখে আন্তর্জাতিক আইন/নীতিমালার সুবিধা গ্রহণের ব্যবস্থা করা হয়। রপ্তানির ক্ষেত্রে Non-compliance এর জবাব দিয়ে নাগরিককে সেবা প্রদান করা হয়ে থাকে।  

5-৭ দিন; আমদানি ফি-১ম মে. টন ১০টাকা এবং পরবর্তী প্রতি মে. টন ১ টাকা হারে।

উদ্ভিদ স্বাস্হ্য প্রত্যয়নের ক্ষেত্রে প্রতি মে. টন ৫০ টাকা হারে।

কোয়ারেনটাইন অ্যাক্ট-২০১১ অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

১৬

লীফ কালার চার্ট ব্যবহার

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

প্রযুক্তিটি সম্পর্কে উপজেলা, ইউনিয়ন, ব্লক, কৃষকদল/ক্লাব পর্যায়ে আলোচনা ও সভা অনুষ্ঠান করে নির্বাচিত কৃষক, কৃষক প্রশিক্ষক, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাগণকে প্রশিক্ষণ প্রদান, প্রদর্শনী স্থাপন ইত্যাদি কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়। SAAO কর্তৃক চাষিদের মধ্যে LCC ব্যবহারের প্রশিক্ষণ ও পরামর্শ প্রদান করা হয়। SAAO কর্তৃক চাষিদের মধ্যে LCC বিতরণপূর্বক LCC ব্যবহার পদ্ধতি সম্পর্কে অবহিত করা হয় এবং ব্লক প্রদর্শনীতে LCC ব্যবহার করা হয়। চারা রোপনের পর প্রতি ১০ দিন পর পর LCC ব্যবহার করে ইউরিয়ার চাহিদা নিরূপন করে চাষি কর্তৃক সঠিক মাত্রায় ইউরিয়া ব্যবহার নিশ্চিত হয়। লীফ কালার চার্ট ব্যবহার করে ধান ফসলে সঠিক মাত্রায় ইউরিয়া সারের ব্যবহার বিষয়ে কৃষকদেরকে পরামর্শ প্রদান করা হয়ে থাকে।

৪-৫ দিন, ফ্রি

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল ও কৃষি সম্প্রসারণ নীতিমালা অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

১৭

গুটি ইউরিয়া ব্যবহার

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

DAE কর্তৃক গুটি ইউরিয়া প্রযুক্তি সম্প্রসারণের উদ্যোগ গ্রহণ করে ইউএও/ এএও/এইও কর্তৃক গুটি ইউরিয়া ব্যবহার সম্পর্কিত প্রশিক্ষণ ও পরামর্শ প্রদান করা হয়। বিসিআইসি ডিলারদের মধ্যে গুটি ইউরিয়া মেশিন বরাদ্দ দেয়া হয় এবং ইউএও অফিস কর্তৃক গুটি ইউরিয়া ব্যবহারের জন্য অতিরিক্ত গুটি ইউরিয়া বরাদ্দ করা হয়। নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রার অনুকুলে বিসিআইসি ডিলারদের মধ্যে গুটি ইউরিয়া বরাদ্দ প্রদান করা হয়ে থাকে। প্রযুক্তিটি সম্পর্কে উপজেলা, ইউনিয়ন, ব্লক, কৃষকদল/ক্লাব পর্যায়ে আলোচনা ও সভা অনুষ্ঠান, নির্বাচিত কৃষক প্রশিক্ষক, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাগণকে প্রশিক্ষণ প্রদান, প্রদর্শনী স্থাপন ইত্যাদি কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়।

-       গুটি ইউরিয়া প্রয়োগ করে ধান ফসলে ইউরিয়া সার সাশ্রয়ে কৃষকদের পরামর্শ প্রদান করা হয়ে থাকে।

১-১২ মাস; ফ্রি

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল ও কৃষি সম্প্রসারণ নীতিমালা অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

১৮

সমন্বিত বালাই ব্যবস্হাপনা

 

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)/উপ-সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা (SAPPO)

 

সমন্বিত ফসল ও বালাই ব্যবস্থাপনার জন্য ডিএই/প্রকল্প হতে বরাদ্দ প্রাপ্তির পর সরকারি আদেশ/ নীতিমালা মোতাবেক কৃষি অফিস কর্তৃক কার্যক্রম গ্রহণ করে। ইউএও/ এএও/ এইও কর্তৃক এসএএও দের মাঝে আইপিএম বাস্তবায়নে কর্ম এলাকা নির্ধারণ করা হয়। এসএএও কর্তৃক কর্ম এলাকার চাষিদের খসড়া তালিকা তৈরি এবং আইসিএম এর কৃষক মাঠ স্কুল (FFS) গঠন করা হয়। সমন্বিত ফসল ও বালাই ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে প্রশিক্ষণ এবং হাতে কলমে শিক্ষাদানের জন্য ফসলের মাঠে তুলনামূলক পরীক্ষা প্লট স্থাপন করা হয়ে থাকে। ফসল পরিপক্ক হলে মাঠ দিবস উদযাপন এবং ফলন ও গুনাগুনের তুলনামুলক আলোচনা করা হয়। পরবর্তী ফসল উৎপাদনে সমন্বিত বালাই ব্যবস্থাপনা পদ্ধতি গ্রহণের সিদ্ধান্ত এবং ফলোআপ ট্রেনিং-এর ব্যবস্থা করা হয়। প্রযুক্তিটি সম্পর্কে উপজেলা, ইউনিয়ন, ব্লক, কৃষকদল/ক্লাব পর্যায়ে আলোচনা ও সভা অনুষ্ঠান, নির্বাচিত কৃষক, কৃষক প্রশিক্ষক, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাগণকে প্রশিক্ষণ প্রদান, প্রদর্শনী স্থাপন ইত্যাদি কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়ে থাকে। পরিবেশ সম্মত উপায়ে ফসলের বালাই ব্যবস্হাপনায়  কার্যকরী প্রশিক্ষণ ও পরামর্শ প্রদান করা হয়ে থাকে।

৪-৫ দিন; ফ্রি

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল ও জাতীয় আইপিএম নীতিমালা অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

১৯

সেচ ব্যবস্হাপনা

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

সেচ ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে উপজেলা, ইউনিয়ন, ব্লক, কৃষকদল/ক্লাব পর্যায়ে আলোচনা ও সভা অনুষ্ঠান, নির্বাচিত কৃষক প্রশিক্ষক, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাগণকে প্রশিক্ষণ প্রদান, প্রদর্শনী স্থাপন ইত্যাদি কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়। রাবার ড্যাম এর ক্ষেত্রে কৃষকদল গঠন, তালিকা প্রণয়ন, উপযুক্ত ও সেচযুক্ত জমি (তিন একর) একসাথে নির্বাচন করা হয়। এডব্লিউডি পাইপ এর ক্ষেত্রে প্রশিক্ষণ প্রদান এবং নির্বাচিত কৃষক/কৃষক ক্লাবের নিকট হস্তান্তর করা হয়ে থাকে।  সেচ ব্যবস্থাপনা প্রযুক্তির ওপর প্রশিক্ষণ ও পরামর্শ প্রদান করা হয়। সেচ কাজে ভূপরিস্থ পানি ব্যবহারে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করাসহ সেচ প্রয়োগে AWD (Alternate Wetting & Drying) প্র্রযুক্তি ব্যবহারে কৃষকদেরকে পরামর্শ প্রদান করা হয়। ইউএও অফিস কর্তৃক সেচাবাদ বিষয়ে প্রয়োজনীয় তথ্য সংরক্ষণ ও সেচ ব্যবস্থাপনা বিষয়কে পরামর্শ সেবা কার্যক্রম গ্রহণ এবং সেচাবাদ প্রযুক্তি বিষয়ে এসএএও দের প্রশিক্ষণ প্রদানের ব্যবস্থা করা হয়। ফসল ভিত্তিক সেবা ব্যবস্থাপনা বিষয়ে নির্বাচিত কৃষকদের প্রশিক্ষণ প্রদানসহ এসএএও কর্তৃক মাঠ পর্যায়ে কৃষকদের হাতে কলমে প্রশিক্ষণ ও সেচ সিডিউল মত ফসলে সেচ প্রদানে সহায়তা দেয়ার বিষয়ে পরামর্শ দেয়া হয়।

৪-৫ দিন; ফ্রি

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

২০

প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় পরামর্শ প্রদান

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগ যেমন খরা, বন্যা, ঝড়, লবণাক্ততা, শীলাবৃষ্টি, জলাবদ্ধতা, জলোচ্ছ্বাস ইত্যাদি সংক্রান্ত প্রাকৃতিক দূর্যোগের পূর্বাভাস ও  দুর্যোগ মোকাবেলায় প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান করা হয়ে থাকে। তাছাড়া, প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলা বিষয়ে মহড়া প্রদান করে প্রাকৃতিক দুর্যোগ সম্পর্কে অবহিত হওয়া এবং তাৎক্ষণিক মোকাবেল করার সক্ষমতা অর্জনে সহায়তা করা হয়। টেলিফোন/মোবাইল/নিয়ন্ত্রণ কক্ষ/ ফ্যাক্স/ মেইল দ্বারা তাৎক্ষণিকভাবে অন্যদের সতর্কীকরণ এবং করনীয় সম্পর্কে জেলায়, উপজেলায় এবং ব্লক পর্যায়ে অবহিতকরণ ও পরামর্শ প্রদান এবং জরুরি সভা করা হয়। হাট-বাজার ও অন্যান্য জনবহুল স্থানে ঢোল শহরত এবং মসজিদ/মন্দির/গীর্জা ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের মাইকে ব্যাপক প্রচার করে প্রাকৃতিক দুর্যোগকালীন এবং দুর্যোগ পরবর্তী করণীয় সম্পর্কে জনগণকে সচেতন করা হয়।

৪-৫ দিন; ফ্রি

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা নীতিমালা অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

২১

বসতবাড়ীর আঙিনায় সবজি চাষ

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

 

পিডি/ ডিডি কর্তৃক ইউএও/ এএও/ এইও দের বসতবাড়ীর আঙিনায় সবজি চাষ বিষয়ক সার্বিক পরামর্শ ও প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়। ইউএও/ এএও/ এইও কর্তৃক নিয়মিত বসতবাড়ীর আঙিনায় সবজি চাষ বিষয়ক সার্বিক পরামর্শ ও প্রশিক্ষণ কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়। এইও/এএইও/ এসএএও কর্তৃক ব্লক পর্যায়ে কৃষকদের পরামর্শ প্রদান ও হাতে কলমে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়ে থাকে। উপজেলা, ইউনিয়ন, ব্লক, কৃষকদল/ক্লাব পর্যায়ে আলোচনা ও সভা অনুষ্ঠান, নির্বাচিত কৃষক প্রশিক্ষক, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাগণকে প্রশিক্ষণ প্রদান, প্রদর্শনী স্থাপন ইত্যাদি কার্যক্রম গৃহীত হয়। উপকরণ সরবরাহ, বাস্তবায়নের সহযোগিতা, মনিটরিং, মাঠ দিবস, মূল্যায়ন, জটিল সমস্যা দেখা দিলে বা প্রযুক্তির বিপর্যয় ঘটলে গবেষণা প্রতিষ্ঠানকে জানানো হয়। কৃষক/কৃষাণীদের বসতবাড়ীর আঙিনায় সবজি চাষ ব্যবস্হাপনায় প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদানের পাশাপাশি পারিবারিক পুষ্টি বিষয়ক প্রশিক্ষণ ও সবজি বীজ উৎপাদনে পরামর্শ প্রদান করা হয়ে থাক।

১-১২ মাস; ফ্রি

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল ও কৃষি সম্প্রসারণ নীতিমালা অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

২২

নার্সারিব্যবসায়ীদের/ চারা উৎপাদক ও বিক্রেতাদের সার্টিফিকেট প্রদান

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

উন্নত জাতের দেশি ও বিদেশি ফুল, সৌন্দর্যবর্ধক গাছ এবং বনজ ও ফলদ বৃক্ষের বাগান সৃজনে কৃষকদের নিকট চারা সহজলভ্য করতে নার্সারি ব্যবসায়ীদের/ চারা উৎপাদক ও বিক্রেতাদের সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়। এজন্য নিম্নবর্ণিত পদ্ধতি অনুসরণ করা হয়-

আবেদনকারী কর্তৃক নির্ধারিত ফি ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ লাইসেন্সের জন্য আবেদন করতে হয়। যাচাই এর জন্য কর্মকর্তা মনোনয়ন করে সরকারি নীতিমালা মোতাবেক এইও কর্তৃক আবেদনকারীর নার্সারি/চারা বিক্রেতার দোকান পরিদর্শন ও যাচাই করে সুপারিশসহ প্রতিবেদন দাখিল করা হয়। ইউএও উক্ত সুপারিশসহ প্রস্তাব পুনরায় জেলা অফিসে প্রেরণ করেন। ডিডি কর্তৃক অনুমোদন ও সার্টিফিকেট ইস্যু করে উপজেলাতে প্রেরণ করা হয়। পরবর্তীতে উপজেলা থেকে আবদেনকারীকে সার্টিফিকেট সরবরাহ করা হয়।

৫-৬ দিন; ফি ৫০০ টাকা

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল ও কৃষি সম্প্রসারণ নীতিমালা এবং নার্সারি গাইড লাইন ২০০৮ অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

২৩

ফলদ ও ঔষধি বৃক্ষের চারা/কলম/বীজ উৎপাদন, জার্মপ্লাজম সংগ্রহ ও সংরক্ষণ

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ

কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

সংশ্লিষ্ট ফলদ ও ঔষধি বৃক্ষের চারা/ কলম/ বীজ উৎপাদন, জার্মপ্লাজম সংগ্রহ ও সংরক্ষণের বিষয়ে ইউএও/এএও/এইও/ এসএএও দের প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয় এবং প্রশিক্ষণের জন্য নার্সারি মালিক/কৃষক নির্বাচন করা হয়।

ফলদ ও ঔষধি বৃক্ষের চারা/কলম/বীজ উৎপাদন, জার্মপ্লাজম সংগ্রহ ও সংরক্ষণের বিষয়ে ব্লক/ মাঠ পর্যায়ে নার্সারি মালিক/ কৃষকদের পরামর্শ ও হাতে কলমে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা নেয়া হয়। ইউএও কার্যালয়ে ও মাঠ পর্যায়ে হাতে কলমে প্রশিক্ষণ প্রদান শেষে চারা/ উপকরণ বিতরণ করা হয়।

উন্নত জাতের দেশি ও বিদেশি ফলদ ও ঔষধি বৃক্ষের জাত সংরক্ষণের নিমিত্তে মাতৃ গাছের বাগান সৃজন করা এবং কৃষকদের মাঝে উন্নত জাতের মান সম্মত চারা/কলম/ সরবরাহ করা হয়।

৬-৭ দিন; ফি ২০ - ৫০০ টাকা

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল ও কৃষি সম্প্রসারণ নীতিমালা এবং নার্সারি গাইড লাইন ২০০৮ অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

২৪

সয়েল                     মিনি ল্যাব ওয়াগনস্টিক সেন্টার পপরিচালনা

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

এসএএ কৃষক কর্তৃক ব্লকের বিভিন্ন প্লট থেকে মাটির নমুনা সংগ্রহ করে মাটির নমুনা পরীক্ষা করে ইউএও কর্তৃক মাটির নমুনা পরীক্ষার ফলাফল ব্লকের সংশ্লিষ্ট এসএএও কে অবহিত করা হয়। পরবর্তীতে এনএসএএও কর্তৃক মাটির নমুনা পরীক্ষার ফলাফল ব্লকের চাষিদের জানানো হয়।মাটির নমুনা/রোগ, পোকার নমুনা সংগ্রহ পদ্ধতি বিষয়ে কৃষকদের  প্রশিক্ষণ দেয়া হয় এবং কৃষকদের নিকট থেকে মাটির/রোগ পোকার নমুনা গ্রহণ করে উপজেলা/জেলা পর্যায়ে নমুনা পরীক্ষা করা হয়। বিশেষ ক্ষেত্রে নমুনা মৃত্তিকা গবেষণাগারে/কৃষি গবেষণাগারে প্রেরণ করা হয়ে থাকে। মাটি পরীক্ষার মাধ্যমে ফসল ভিত্তিক সুপারিশমালা প্রণয়ন পূ্র্বক সয়েল হেলথ কার্ড প্রদান এবং মৃত্তিকা পরীক্ষার ফলাফল অনুযায়ী জমিতে সুষম সার প্রয়োগের পরমর্শ দেয়া হয়।

 

১-১২ মাস; ফ্রি

নিউ এগ্রিকালচারাল এক্সটেনশন পলিসি (NAEP)

উপ-পরিচালক

২৫

জাতীয় পর্যায়ে ও জেলা পর্যায়ে ইদুঁর নিধন কার্যক্রম

১। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

২। অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা

৩। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৪। সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা

৫। উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা (SAAO)

ডিএই’র উদ্ভিদ সংরক্ষণ উইং থেকে প্রেরিত পোষ্টার, লিফলেট ও বুকলেট উপ-পরিচালক কর্তৃক গ্রহণ করার পর, উদ্ভুদ্ধকরণ সভার আয়োজন করে বিভাগ জেলা উপজেলা ও ব্লক পর্যায়ে উপকরণ বিতরণ করা হয়। পোষ্টার, লিফলেট ও বুকলেট প্রদত্ত নির্দেশনা মোতাবেক ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান/ সংস্থা/ ক্লাব কর্তৃক ইঁদুর দমন করার ব্যবস্থা নেয়া হয়। ইঁদুর নিধনের ব্যাপারে ব্যাপক প্রচারের লক্ষ্যে জেলা/ উপজেলা/ ইউনিয়ান/ ব্লক/ কৃষক ক্লাব পর্যায়ে সভা/ কর্মশালা/ র‌্যালি ইত্যাদির আয়োজন করা হয়। কৃষক সংগঠন ও জনপ্রতিনিধিদের উদ্বুদ্ধকরণ এবং সর্বোচ্চ ইঁদুর দমনকারী ব্যক্তি/ কৃষক/ এসএএও/প্রতিষ্ঠান শিক্ষা প্রতিষ্ঠান/ বেসরকারি সংস্থা/ক্লাব আইপিএম/ আইসিএম এর মাঝে পরবর্তী বছরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পুরস্কার প্রদান।

 

৩-৫ দিন (ইদুর নিধন কর্মসূচি মোতাবেক); ফ্রি

কৃষি সম্প্রসারণ ম্যানুয়েল ও কৃষি সম্প্রসারণ নীতিমালা অনুযায়ী

উপ-পরিচালক

প্রদেয় সেবাসমূহের তালিকা

সেবা ক্রমিক নং

সেবার নাম

সেবার পর্যায়

(সদর দপ্তর, অঞ্চল, জেলা, উপজেলা, ব্লক)

১।

প্রযুক্তি সহায়তা

ব্লক, উপজেলা, জেলা, অঞ্চল, সদর দপ্তর

২।

মান সম্মত বীজ উৎপাদনে সহায়তা

উপজেলা

৩।

কৃষি ঋণ প্রাপ্তিতে সহায়তা প্রদান

উপজেলা

৪।

কৃষি তথ্য ও যোগাযোগ  প্রযুক্তি সহায়তা

ব্লক, উপজেলা, জেলা, অঞ্চল, সদর দপ্তর

৫।

সমন্বিত সম্প্রসারণ সেবা প্রদান

ব্লক, উপজেলা, জেলা, অঞ্চল, সদর দপ্তর

৬।

কৃষি পণ্য বিপণনে সহায়তা করা

ব্লক, উপজেলা, জেলা, অঞ্চল, সদর দপ্তর

৭।

কৃষি পণ্যের মূল্য সংযোজনে সহায়তা

ব্লক, উপজেলা, জেলা, অঞ্চল, সদর দপ্তর

৮।

প্রশিক্ষণ প্রদান

ব্লক, উপজেলা, জেলা, অঞ্চল, সদর দপ্তর

৯।

কৃষি পুণর্বাসনে সহায়তা

ব্লক, উপজেলা, জেলা, অঞ্চল, সদর দপ্তর

১০।

কৃষিতে ভর্তুকি  ও উৎপাদনে সহায়তা প্রদান

ব্লক, উপজেলা, জেলা, অঞ্চল, সদর দপ্তর

১১।

১০ টাকার বিনিময়ে ব্যাংকে হিসাব খুলতে সহায়তা

উপজেলা

১২।

কৃষি উপকরণ সহায়তা

উপজেলা

১৩।

সার ডিলার ও খুচরা সার বিক্রেতা নিয়োগ

উপজেলা ও জেলা

১৪।

বালাই নাশকের খুচরা ও পাইকারি বিক্রেতার লাইসেন্স প্রদান

উপজেলা ও জেলা

১৫।

সংনিরোধ সেবা

সংগনিরোধ কেন্দ্র ও সদর দপ্তর

 

১৬।

লীফ কালার চার্ট ব্যবহার

উপজেলা ও জেলা

১৭।

গুটি ইউরিয়া ব্যবহার

উপজেলা ও জেলা

১৮।

সমন্বিত বালাই ব্যবস্হাপনা

উপজেলা ও জেলা

১৯।

সেচ ব্যবস্হাপনা

উপজেলা ও জেলা

২০।

প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় পরামর্শ প্রদান

উপজেলা ও জেলা

২১।

বসতবাড়ীর আঙ্গিনায় সবজি চাষ

উপজেলা ও জেলা

২২।

নার্সারি ব্যবসায়ীদের/চারা উৎপাদক ও বিক্রেতাদের সার্টিফিকেট প্রদান

উপজেলা ও জেলা

২৩।

ফলদ ও ঔষধি বৃক্ষের চারা/কলম/বীজ উৎপাদন, জার্মপ্লাজম সংগ্রহ ও সংরক্ষণ

উদ্যানতত্ত্ব কেন্দ্র

২৪।

সয়েল মিনি ল্যাব, এস আর ডি আই ল্যাব ও ডায়াগনষ্টিক সেন্টার পরিচালনা

উপজেলা ও জেলা

২৫।

জাতীয় পর্যায়ে ও জেলা পর্যায়ে ইদুঁর নিধন কার্যক্রম

সদর দপ্তর ও জেলা

সিটিজেন চার্টার

                 কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর একটি সরকারী সেবামূলক প্রতিষ্ঠান । এ অধিদপ্তরের মূল দায়িত্ব হচ্ছে আধুনিক ও লাগসই প্রযুক্তি হস্তন্তরের মাধ্যমে এ দেশের কৃষি উন্নয়ন কর্মকান্ডে জড়িত সংস্থা । প্রতিষ্ঠানের সাথে যোগসূত্র রচনা করে কৃষি উন্নয়নের গতিধারাকে ত্বরান্বিত করা । এ কাজে কেন্দ্র থেকে মাঠ পর্যায় পর্যন্ত প্রায় ২৮৯ জন কর্মকর্তা ও কর্মচারী কাজ করছেন । প্রযুক্তি হস্তান্তরের  ক্ষেত্রে কৃষি পরিবেশ, কৃষকের আর্থসামাজিক অবস্থা , বাজার চাহিদা ইত্যাদি বিষয়কে গুরুত্ব দিয়ে কৃষি স্প্রসারণ অধিদপ্তর এ দেশের কৃষি ও কৃষকের সেবা প্রদান করে আসছে ।

 

                                        এ অধিদপ্তরের সিটিজেন চার্টার নিম্নরুপঃ

সকল শ্রেণীর কৃষকের জন্য কৃষি সম্প্রসারণ সহায়তা দেয়াঃ
           সব খরনের কৃষক পরিবারের সকল সদস্য তাদের প্রয়োজনাণুযায়ী যাতে সেবা পেতে পারে তার নিশ্চিয়তা দেয়া ।


কৃষকদের দক্ষ সম্প্রসরাণ সেবা প্রদানঃ
           দক্ষ সম্প্রসরাণ কর্মীর মাধ্যমে শস্য,মৎস্য, পশু সম্পদ, বন ও পারিবারিক উদ্যোগে কৃষকদের সর্বাধিক ব্যয় সাশ্রয়ী সেবা প্রদান করা ।


কৃষি বিষয়ক কর্মসূচী প্রণয়ন বিকেন্দ্রীকরণঃ
           তথ্য চাহিদা চিহ্নিতকরন ও চাহিদার প্রুত সাড়া প্রদান,স্থানীয় সম্পদ সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ,কর্মসূচী পরিকল্পনা, প্রশিক্ষণ এবং গনমাধ্যম ভিত্তিক 

কর্মসূচী প্রণয়ন ।


চাহিদা ভিত্তিক কৃষি সম্প্রসারণঃ
           চিহ্নিত চাহিদা, সমস্যা ও সম্ভাব্যতার উপর ভিত্তি করেই সকল সম্প্রসারণ কার্যক্রম ও গবেষনাদির বিষয়বস্তু নির্ধারণ করা ।


সকল শ্রেণীর কৃষকদলের সাথে কাজ করাঃ
           কৃষকের কাজে সর্বাধিক সুবিধা পৌছে দিতে মাঠ পর্যায়ে বিদ্যমান পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন প্রকার কৃষক দলের সাথে কাজ করা ।


কৃষি গবেষণা ও কৃষি সম্প্রসারণ কার্যক্রম জোরদারকরণঃ
          কৃষকদের উপযুক্ত পরামর্শ দিতে তাদের প্রয়োজনাণুযায়ী কৃষি গবেষনাগারের মাধ্যমে সমস্যার সমাধান বের করতে কৃষি গবেষণা ও কৃষি সম্প্রসারণ এর সাথে নিবিড় সর্ম্পক গড়ে তোলা ।


সম্প্রসারণ কর্মীদের জন্য প্রশিক্ষণঃ
           কৃষকদের সেবা চাহিদার উপর ভিত্তি করে সম্প্রসারণ কর্মীদের প্রশিক্ষণ দেয়া ।


উপযুক্ত সম্প্রসারণ পদ্ধতির ব্যবহারঃ
           বিভিন্ন শ্রেণীর কৃষকের সুনিদির্ষ্ট সম্প্রসারণ উদ্দেশ্যাবলী অর্জনের লক্ষ্যে সম্প্রসারণ সংস্থা ও কর্মী বৃন্দ খামার পরিদর্শন, গন মাধ্যম, প্রশিক্ষণ, মেলা, পরিদর্শন ও উদ্বুদ্ধকরন ভ্রমণ এবং অংশগ্রহন মূলক পদ্ধতি সমূহ ব্যবহার ।


সমন্বিত সম্প্রসারণ সহায়তা প্রদানঃ
          কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর আরও বিভিন্ন সরকারী ও বেসরকারী সংস্থার সাথে সমন্বয় সাধনের মাধ্যমে সম্প্রসারণ সহায়তা প্রদান করে ।


সম্মিলিত সম্প্রসারণ কার্যক্রমঃ
          সম্পদ সমূহের সবোর্ত্তম ব্যবহার নিশ্চিত করার জন্য সংশ্লিষ্ট সংস্থা গুলির মধ্যে তথ্য ও দক্ষতা বিনিময়ের মাধ্যমে সম্প্রসারণ সেবা দান করা ।


পরিবেশ সংরক্ষনে সমন্বিত সহায়তা প্রদানঃ
           প্রাকৃতিক পরিবেশের জীব বৈচিত্রের ভারসাম্য রক্ষার অনুকূলে ভূমি, পানি, বায়ু দূষন ও ক্ষয় নিয়ন্ত্রণ দূর করা; পরিবেশ সুরক্ষাকারী এবং ব্যবস্থাপনা ও সরকারী এবং ব্যক্তিখাতের পরিবেশ সংক্রান্ত বিষয়াবলী রক্ষার সক্ষমতা বৃদ্ধি করা ।


কৃষি ব্যণিজ্যিকীকরণঃ
           কৃষকরে উৎপাদিত পন্যের বাজারজাতকরণে এবং ন্যায্যমূল্য পেতে সহায়তা করা ।


কৃষি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযক্তির ব্যবহারঃ
           কৃষি বিষয়ক যে কোন তথ্য, পরামর্শ এবং প্রযুক্তি কৃষি কর্মী, কৃষক এবং ষাধারণ জনগনের মধ্যে পৌঁছানো ।

তথ্য অধিকার

বিজ্ঞপ্তি

আইন ও সার্কুলার